মেনু নির্বাচন করুন

কদম রসুল দরগাহ

কদম রসুল দরগাহ নারায়ণগঞ্জ জেলার একটি অন্যতম দর্শনীয় স্থান। দরগাটি নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর কোল ঘেঁষে অবস্হিত। ধারণা করা হয়, দরগায় রক্ষিত পাথরের ফলকের উপর দৃশ্যমান পদচিহ্নটি প্রকৃতপক্ষে হযরত মুহম্মদ (সা:) এর পদচিহ্ন। পাথরের ফলকটি আকারে প্রায় ২৪০০ বর্গ সে: মি: এবং অনেকটা মানুষের পায়ের পাতার আকৃতিতে কাটা। ইতিহাসবিদদের মতে মাসুম খান কাবুলী নামে একজন আফগান রাজা/সেনাপ্রধান সপ্তম শতাব্দীতে এই নিদর্শনটি একজন আরব সওদাগর-এর নিকট থেকে সংগ্রহ করেন। বর্তমানে যে মঠের ভেতরে কদম রসুল ফলকটি রক্ষিত সেটি ১৭৭৭-৭৮ খ্রিস্টাব্দে গোলাম নবী নামে ঢাকার একজন জমিদারের হাতে নির্মিত। কদম রসুল এর ফলকটি মঠের কেন্দ্রে অত্যন্ত যত্নের সাথে সংরক্ষিত। হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্রতিদিন বহু ধর্মপ্রাণ মুসলিম এই দরগায় আসেন। দরগার ভেতরে মঠ ছাড়াও একটি বিশাল মসজিদ রয়েছে। বিশেষ করে দরগার প্রবশদ্বারের নির্মাণশৈলী সবার নজর কেড়ে নেয়। নারায়ণগঞ্জ ছাড়াও চট্রগ্রামে এরকম আরো দুইটি দরগাহ রয়েছে। তবে নবীগঞ্জে  অবস্থিত কদমরসুল দরগাটিই সর্বাধিক পরিচিত । ঢাকার গুলিস্তান থেকে বাসযোগে নারায়ণগঞ্জ শহরের হাজীগঞ্জ গুদারাঘাট থেকে নৌকা পার হয়ে বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জ গুদারাঘাটে নেমে পায়ে হেঁটে কদম রসুল দরগায় যাওয়া যায়। সড়ক পথে কাঁচপুর ব্রিজ পার হয়ে মদনপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে নবীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড পৌঁছে পশ্চিম দিকে রিকশাযোগে কদম রসুল দরগায় যাওয়া যায়।